Loading...

Tuesday, August 23, 2022

বন্দেমাতারাম থেকে বিসমিল্লাহ, পিছু ছাড়ছে না বিতর্ক : কি বললেন বাংলার টলিউডের পরিচালকরা

 



 শ্রীজা ঘোষ ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় 

পর্দায় আসতে চলেছে বাংলার গর্ব সাহিত‍্যসম্রাট বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের কালজয়ী উপন্যাস আনন্দমঠ। তবে  তা এবার পরিচালনা করবেন  দক্ষিণের বিক্ষ্যাত পরিচালক অশ্বিন গঙ্গারাজু। তিনি 'বাহুবলি' ও 'ইগা' ছবিতে পরিচালক এস.এস.রাজামৌলির সহকারী ছিলেন।

আনন্দমঠ থেকে  অনুপ্রাণিত এই ছবিটির নামকরণ করা হয়েছে '1770'। আর এই ছবির পোস্টার সামনে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে উঠেছে বিতর্কের ঝড়। নেটিজনদের একাংশের দাবি বাংলায়  রয়েছে সাহিত্যের খনি। এমন এক কালজয়ী উপন্যাসকে নিয়ে দক্ষিণ ইন্ডাস্ট্রি ভাবতে পারলো অথচ অবহেলিত হয়ে রইল বাংলাতেই। বাংলার পরিচালকরা চিরকাল দক্ষিণ সিনেমা টুকে গেল  অথচ বাংলায়  এমন রত্ন থাকতেও তাকে অবহেলিত করল বাংলার পরিচালকরা। এই সিনেমা উপহার দেওয়ার জন্য দক্ষিণ ইন্ডাস্ট্রিকে অভিনন্দনও জানান অনেকে।






এদিকে ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্ত পরিচালিত ও ঋদ্ধি সেন অভিনীত বিসমিল্লাকে ঘিরেও সোশ্যাল মিডিয়াতে উঠেছে নানা প্রশ্ন। তাদের মতে এক বিশেষ সম্প্রদায়কে পোষণ করতেই তৈরি হচ্ছে এই ধরনের সিনেমা। একজনই কেউ লিখেই বসেন দক্ষিণ ভারত যখন বলছে বন্দেমাতরম  তখন বাংলা বলছে বিসমিল্লাহ। তাদের অনেকেরই ক্ষোভ যে বাংলার ঐতিহ্য ও ইতিহাসকে দক্ষিণ ভারতের পরিচালকরা তুলে ধরছেন। অথচ বাংলায় তা হচ্ছে না।


 ঋদ্ধি সেনের একটি পোস্ট নিয়ে এক জনৈক বলেন  এক হাতে গীতা আর এক হাতে তলোয়ার নিয়ে স্বাধীনতার শপথ নেওয়া বাঙালি, বন্দেমাতরম মন্ত্রে দীক্ষিত বাঙালি… বলে কিনা ‘বলতেই হবে বিসমিল্লা


এই বিষয় Bong Journal কে অরণ্যদেব খ্যাত  পরিচালক দেবাশীষ সেন শর্মা জানান বাংলা‌তেও আনন্দমঠ হয়েছিল । সেখানে অভিনয় করেছিলেন‌ বসন্ত চৌধুরী। তিনি বলেন‌ আনন্দমঠ ছবিটি টলিউডের‌ ক্ষেত্রে বানানো খুব ব্যয়সাধ্য । আমরা বাইরের কাজ দেখে এতটাই এক্সপোজ হয়ে যাচ্ছি। যদি ওই স্কেল আচীভ না করতে পারি তাহলে লোকে হাসবে। আমাদের‌ অর্থনৈতিক দীনতা চোখে‌ পড়বে। দক্ষিনের সেই খরচ করার সাধ্য আছে বলে তারা‌ এটা বানাতে পারে।


অন্যদিকে আর এক অন্যতম পরিচালক রাজদীপ ঘোষ‌ বলেন‌  সিনেমাতে এই ভাগাভাগি করা ঠিক নয়। সিনেমা ভাগ করছে কিছু মানুষ যারা হঠাৎ‌ ক্রিটিক হয়েছে,যাদের কোনো কাজ‌ নেই ,যারা‌ সিনেমা শিল্পের সাথে যুক্ত নয়। ঘরে বসে বক্তৃতা দিতে অনেক ভালো লাগে। বাংলা থেকেই বড় বড় লেখকের‌ গল্প বেরিয়েছে। ভাগ করার কি আছে সাউথ‌ ইন্ডিয়া করছে বাংলার‌ লোক করতে পারছেনা‌। যে লোকগুলো এই কথা বলে বাংলার‌ পরিচালক‌,শুটিং ইউনিট কিভাবে কাজ‌ করছে এসে দেখে যাক। একদম কাজ‌ বন্ধ করার‌ থেকে নাই মামার‌ থেকে কানা মামা হচ্ছে। হ্যাঁ নিশ্চয়ই ভালো হবে। সিনেমা খারাপ হয়না ।যার‌ যার‌ পয়েন্ট অফ ভিউ‌ থেকে সিনেমা তৈরি হয়। আমার ভালো নাই লাগতে পারে ,মনটা আমার আলাদা‌ আপনার মনটা আলাদা ,আপনি‌ ভাবেন‌ একরকম আমি ভাবি একরকম‌ । আমার‌ পড়াশোনা একরকম ,আপনার‌ পড়াশোনা একরকম । কিন্তু খারাপ বলার অধিকার‌ নেই।


এদিকে এখনকার  সুপরিচিত আর এক পরিচালক সায়ন বসু চৌধুরীর মতে বাংলাতেও অনেক  ভাল সিনেমা হচ্ছে। দক্ষিণ ভারত , বাংলা সাহিত্য নিয়ে কাজ করছে মানে এই নয় যে আমারা বানাতে পারব না। এখানেও ভাল গল্প নিয়ে কাজ হয় । তাই এটা এমন কোন বড় বিষয় বলে আমার মনে হয়না। বরং এটার একটা পজিটিভ দিক হল আমাদের সাহিত্য আরও দূর পর্যন্ত পৌছাবে মানুষের কাছে অন্য ভাষার মাধ্যমে। আর সাহিত্য সকলের। ওভাবে মাপকাঠি করে দেওয়া উচিত না।  হ্যারি পটার বা লর্ড অফ দি রিংস  এর মতই এরম গল্পের কোন ভাষা হয়না। 

তবে সাহিত্য নির্ভর ছবি এখন কিছুটা কম হচ্ছে সেটা কিছুটা ঠিক। এর  একটা কারন হল এখন অনেক বেশি মৌলিক গল্প নিয়ে কাজ হচ্ছে। আরবান মুভি বেশি হচ্ছে। কিন্তু নিশ্চয়ই ভবিষ্যতে আবার একটা সময় আসবে যখন ব্যাক টু ব্যাক সাহিত্য নির্ভর ছবি হবে।


বিসমিল্লার বয়কট নিয়ে সায়নকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন  মানুষ এখন ট্রেন্ডে গা  ভাসিয়ে চলছে। আমি মনে করি সিনেমা ভাল হলে সেটা আজ  নয় কাল অবশ্যই চলবে।


আনন্দমঠ উপন্যাসটি অষ্টাদশ‌ শতাব্দীর‌ দ্বিতীয়ার্ধে হিন্দু সন্ন্যাসীদের ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিরুদ্ধে সসস্ত্র সংগ্ৰাম নিয়ে লেখা। অষ্টাদশ শতাব্দীর দ্বিতীয়ার্ধ ছিল ভারতের ইতিহাসে চরম‌ অরাজকতার সময়। এই সময় সাধারন‌ হিন্দুদের মুসলমান‌ শাসনকর্তা ও ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানীর দ্বারা‌ হত্যা‌ করা‌ ছিল‌ সাধারন‌ ঘটনা। ভারতে যখন বিভিন্ন রাজত্বগুলি‌ ভেঙ্গে পড়ছিল‌ এবং দেশীয় রাজাদের‌ শক্তি ক্ষয় হয়ে আসছিল‌ সেই সময় সন্ন্যাসীরা সশস্ত্র সংগ্ৰাম করেছিল এইসব আক্রমণকারীদের বিরুদ্ধে।  


প্রথম ১৯৫২ সালে হেমেন‌ গুপ্ত হিন্দীতে আনন্দমঠ বানিয়েছিলেন। সিনেমাটি পরিচালনা করবেন ছবির‌ চিত্রনাট্য লিখবেন ভি.বিজয়েন্দ্র প্রসাদ।এই সিনেমাটি নির্মাণ করছেন‌ লেখক ও‌ চলচ্চিত্র নির্মাতা রাম‌কমল মুখার্জি।এই সিনেমাটি বাংলা, হিন্দি,তেলেগু,তামিল,মালায়ালাম‌ ও কন্নড় ভাষায় তৈরি হবে।




Friday, August 19, 2022

Tapsee Pannu at Kalighat temple to seek blessing




On the occasion of release day of the film DOBAARAA  Taapsee Pannu and Pavail Gulati visited Kalighat Temple to seek blessings of the Goddess for their movie.










Wednesday, August 10, 2022

জন্যপ্রিয় youtuber অরিত্র ব্যানার্জীর পরিচালনায় কুড়ি মিনিটের জমজমাট থ্রিলার মুভি Writer's block



লিখেছেন অনন্যা চ্যাটার্জী


আমরা অনেকেই শুনেছি জন্যপ্রিয় youtuber অরিত্র ব্যানার্জীর কথা । তিনি youtube জগতে অনেক বাহবা পেয়েছেন তার ভিডিও-র মাধ্যমে । তার youtube চ্যানেলে অর্থাৎ  চ্যানেলে অনেক সময় সিনেমার রিভিউ দিতে দেখা গেছে । তার সাথে সাথে তিনি কিছু ইন্টারভিউ এবং আরো কিছু শর্ট ফ্লিমও করেছেন । 


এবার আগামী ১৫ আগস্ট আসতে চলেছে তারই পরিচালিত শর্ট ফ্লিম রূপতুহিন দত্ত প্রযোজিত "writer's block" । দেখা যাবে তারই youtube চ্যানেলে । 


Writer's block-এ অর্থাৎ  তার এই  শর্ট ফিল্মে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছে দেবতনু ও রিমোনা দাস । এবং তার পাশে পাশে এই শর্ট ফ্লিমে অভিনয় করেছেন সানময় ঘোষ, দীপ্তদীপ মিত্র , ও অরিত্র ব্যানার্জী । সঙ্গীত পরিচালনায় রয়েছে অমিত দাস । সহকারী চিত্রগ্রহণ করেছে রাহুল বিশ্বাস ।


"Writer's block" মূলত একজন লেখকে নিয়ে লেখা একটি গল্প । একজন লেখক যার প্রথম বই বেস্ট সেলার হয়েছিল । তারপর থেকে তিনি বহু চেষ্টা করেও কিছু লিখতে সক্ষম হয়নি । তারই এক বন্ধুর ক্যাফে-তে বসে অনবরত চেষ্টা চালিয়ে যান কিন্তু কোনো লাভ হয়না । হঠাৎ একদিন এক রহস্যময়ী মহিলা ওই ক্যাফে-তে এসে হাজির হয় এবং তাকে দেখা মাত্রই লেখকের মাথায় নানা রকম প্লট আসতে থাকে । লেখক আবার কিছু লেখার চেষ্টা করে এবং মহিলাটি সাথে নিজে গিয়ে কথা বলে । এই সিনেমায় announcement teaser বের করা হয়েছে যেটি এখনও পর্যন্ত কোনো শর্ট ফ্লিমে দেখা যায়নি । আশা রাখা যায় এই ২০ মিনিটের টান টান থ্রিলার শর্ট ফ্লিমটি দ্বারা দর্শকেরা নতুন কিছু অনুভব করবে ।


 অরিত্র ব্যানার্জী   জানিয়েছেন এইটি একটি থ্রিলার শর্ট ফিল্ম যেখানে সত্তরের দশকের অমিতাভ বচ্চনের সিনেমাকে ট্রিবিউটি  দেওয়ার সাথে সাথে তিনি জানিয়েছেন যে গোল্ডেন এজ অফ ডিরেক্টর ফিকশনের কিছু সেরা গল্পকেও প্রাধান্য দিয়েছেন । 


১৫ আগস্ট এই শর্ট ফ্লিমটি মুক্তি পাচ্ছে, এই নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান স্বাধীনতা দিবসের সাথে এই শর্ট ফ্লিমের কোনো মিল নেই , শুধুমাত্রই ছুটির দিন উপলক্ষে এই শর্ট ফ্লিমটিকে ওইদিন মুক্তি দেওয়া হচ্ছে


তিনি আরও জানিয়েছেন যে এই কুড়ি মিনিটের শর্ট ফিম দ্বারা দর্শকেরা নতুন কিছু অনুভব করতে পারবে এবং বলেছেন সকলের সাপোর্ট পেলে পরবর্তীকালে আরো ভালো কিছু কাজ করার ইচ্ছে আছে তাঁর ।



Thursday, July 21, 2022

নতুন প্রতিভার সন্ধানে মেরিন ভিশন প্রোডাকশন অ্যান্ড এন্টারটেনমেন্ট হাউস








 

Sunday, July 17, 2022

Pritam and Arijit the duo magic is back with the Kesariya song from Brahmastra







THE LOVE ANTHEM OF THE YEAR ‘KESARIYA’ FROM BRAHMĀSTRA PART ONE: OUT NOW IN 5 LANGUAGES! 

Kesariya is now available in Hindi, Tamil, Telugu, Malayalam and Kannada versions.




Alia and Ranbir's much awaited film Brahmastra is now geared to take off. In between the love anthem of the year ‘KESARIYA’ FROM BRAHMĀSTRA PART ONE has already been unveiled. 

All it took was a few seconds of Kesariya to take social media by storm, and with the teaser 

audio from the track already ruling the reels, the most-awaited love anthem of the year, Kesariya from Ayan Mukerji’s magnum opus Brahmāstra launches today, in association with Sony Music. The song was shot in the ghats of Varanasi. It's  soothing melody, Arijit Singh's voice and stunning visuals has  already riveted fans' hearts .Fans are ecstatically happy with Pritam's composition and Arijit Singh's mellifluous voice. In a comment one of the audience said 'There is only one person who can save Bollywood's melodious song and that is Arijit singh.'

While Another said  "I badly miss Pritam da's music. Very happy that he is back'


The song was launched today in Hindi, Tamil, Telugu, Malayalam. and Kannada. Ranbir Kapoor says, “The freshness of the song has resonated with the audience really well. I would like to thank the entire team for creating a song that has touched countless hearts and I am sure the audience will cherish the warm experience of the full song.” Actress Alia Bhatt adds, “For me, Kesariya is a feeling that one experiences when they are happy and content with something. It was the first glimpse from Brahmastra Part One: Shiva and it holds a special place for me and the 

entire crew. The song draws me in whenever I listen to it, and I’m sure that the song will touch the hearts of the audience.” 


Director Ayan Mukerji says, “Working with Pritam Da, Arijit, Amitabh Bhattacharya, and the entire team on Kesariya has been a momentous experience. Pritam Da always manages to save the best for me since Yeh Jawaani Hai Deewani. I am personally very excited about all the versions – Arijit Singh, Sid Sriram, Sanjith Hegde and 

Hesham Abdul Wahab have rendered it so beautifully and soulfully which shows across all versions,” Ayan further

adds, “We all love the sizzling chemistry of Ranbir and Alia in the song, which hints at the strong bond they share. Fans all around the world have celebrated Ranbir-Alia’s love through the teaser, and I am very sure, the full track will surpass everyone’s expectations.”


Sharing his thoughts on the launch of the song, music director Pritam adds, “The song has so many layers of 

emotions that it was a real treat to compose. When the teaser went viral, I, Arijit, and Amitabh knew this was something memorable! The entire song is out now, and I hope that it reaches everyone’s top playlists.”

Singer Arijit Singh speaks on singing the track, “Kesariya marks an important milestone as a romantic song in the 

Indian Film Industry. Pritam da’s tunes and Amitabh’s lyrics have been ethereal to begin with. I just did my part 

and I see Ranbir and Alia create absolute magic with the song on screen. Kesariya will stay in people’s hearts for 

sure.”

Lyricist Amitabh Bhattacharya says, “The journey of Kesariya has been long & endearing. As a team we were 

touched by the overwhelming response on the teaser. I'm sure the audiences will embrace the song with as much warmth. This season the shade of love is Kesariya. Hum it, feel it, spread it.”

Friday, June 24, 2022

Yoga for healthy living : An insightful approach towards healthy lifestyle

 



"There is a saying that Yoga is the gateway of happiness that body needs in daily life"


On the occasion of 7th International Yoga Day, Nephrocare India organized a session named "Yoga For Healthy Living" to offer a holistic approach towards a healthy lifestyle with a proper understanding of Yoga. 

Yoga prevents many chronic diseases and is a blessing to mankind. It is the best gift that one can offer to one's own self. Yoga does not change the way we see things; rather it transforms the one who sees.


The event was attended by: Dr. Pratim Sengupta, MD, Internal Medicine and DM, Nephrology as the Mentor; Mr. Subhabrata Bhattacharya, Founder & Director, Mantra Lifestyle Health Club; Mr. Ashish Mittal, Director, Golden Tulip Hotel and several eminent personalities. 


The sessions included Dhauti Kriya, Anga Mardana, Surya Namaskar, Meditation, Om Chanting and Pranayam. Hatha Yoga, Trataka and Mauna was also practised at the programme. 


Mr. Subhabrata Bhattacharya, Founder & Director, Mantra Lifestyle Health Club said, “Regular yoga practice creates mental clarity and calmness; increases body awareness; relieves chronic stress patterns; relaxes the mind; centers attention; and sharpens concentration. Yoga's incorporation of meditation and breathing can help improve a person's mental well-being. Yoga is the golden key to good health and good health is the real wealth."





Mentor of the event, Dr. Pratim Sengupta said, "Yoga is an invaluable gift of India's ancient tradition. It embodies unity of mind and body; thought and action; restraint and fulfillment; harmony between man and nature; a holistic approach to health and well-being. It is not about exercise but to discover the sense of oneness with yourself, the world and nature. By changing our lifestyle and creating consciousness, it can help in well-being. Let us work towards adopting Yoga in our daily lives."


Mr. Ashish Mittal, Director, Golden Tulip Hotel shared his view, saying "You cannot always control what goes on outside. But you can always control what goes on inside. Yoga is the journey of the self, through the self, to the self."


The event was organized in collaboration with Mantra and powered by Map5 Events. It was attended by more than 100 participants at Golden Tulip Hotel, Saltlake, Kolkata. 




Wednesday, June 22, 2022

"Encrypted" The upcoming Suspense Thriller Web Series in Klikk OTT revolves round the Threat of Dark Web in our society.




Saturday, June 4, 2022

KK's SwanSong in Srijit's Sherdil : The Pilibhit Saga is about to hit the theatre in June

Fans are eager to experience Srijit and Pankaj, the duo's magic on screen



S rijit Mukherji's dream project Sherdil : The Pilibhit Saga trailer is out now. Starring Pankaj Tripathi, Sayani Gupta, Neeraj Kabi. The film will open in the theatre on 24 june 2022. And fans are eagerly waiting to see  Tripathi and Mukerji the duo's on screen magic.


Another surprise is that late singer KK lent his eternal voice to Sherdil : The Pilibhit Saga KK passed away on 31May. His sudden demise left the entire country in utter shock. This year in April KK shared his photos on social media where he stated that he sang a beautiful song mentioning Legend like Gulzaar and composer Shantanu Moitro as old friends and director Srijit Mukherjee as new friend. 




In April KK shared his pics on social media  where he said that he sang a beautiful song mentioning legend like Gulzar and music composer Shantanu Mukherjee as old friend and 


The trailer depicts the story of Gangaram, the sarpanch of the village played by Pankaj Tripathi. He seems to be complaining about the ruining of farmland by wild animals. But authorities refused compensation. So Gangaram decides to exploit the government scheme which states that if any family member die of tiger's attack will be given ten lakh rupees as compensation. So comparing himself with Bhagat Singh he decides to sacrifice his life for the sake of his family  and other villagers. While waiting for his death in the forest he confronts Jim (Neeraj Kabi), the poacher and what follows next is unprecedented and interesting. 


Srijit Mukherji said about his movie which was inspired by true story. "I read about the real life incident in 2017.I immediately write the story and registered it and was eager to make the film for the longest time. So finally after 5 years the dream come true"


Wednesday, April 20, 2022

সংগীত শিল্পী সুবিনয়পুত্র সুরঞ্জন রায়ের হাত ধরে প্রকাশিত হলো মৌমিতা পালিতের রবীন্দ্রসংগীত সিডি "কোন অচিনপুরে"


প্রতিবেদন : কেকা মিত্র

সম্প্রতি সংগীত শিল্পী মৌমিতা পালিতের প্রথম রবীন্দ্র সংগীতের এলবাম "কোন অচিনপুরের" সিডি প্রকাশ করলেন প্রয়াত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সুবিনয় রায়ের ছেলে বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সুরঞ্জন রায়। সঙ্গে ছিলেন হিন্দুস্তানী ক্লাসিকাল শিল্পী পণ্ডিত শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায়, দক্ষিণী র প্রধান ও রবীন্দ্রসংগীত শিল্পীদেবাশীষ রায় চৌধুরী, আবৃত্তিকার মধুমিতা বসু, স্টুডিও পিয়ানি সিমো র কর্ণধার দেবাশীষ সাহা। এই বিশিষ্টজনেদের মতে বহুদিন বাদে এই রকম সিডি আকারে রবীন্দ্রসংগীত এর এলবাম প্রকাশিত হলো।  গানের ভূয়সী প্রশংসা করেন সকলে। 



"কোন অচিনপুরে" এই সিডিতে রয়েছে শিল্পীর গাওয়া ১২ টি গান। তার কণ্ঠে ভালো লাগে শুনতে "ওদের সাথে মেলাও", "আমারে তুমি অশেষ করেছ", "এত আনন্দধনী", "ওগো তুমি পঞ্চদশী", "আমার খেলা যখন ছিলো", "দূরে কোথায় দূরে দূরে" প্রমুখ গানগুলি। শিল্পী মৌমিতা ক্লাসিক্যাল শিখেছেন আগ্রা ঘরানার পন্ডিত যসপাল, সুবোধ পরদকার ও প্রয়াত পন্ডিত নাথ নিরলকর এর কাছে। রবীন্দ্রসংগীত শিখেছেন ডঃ চিত্রলেখা চৌধুরীর কাছে। বর্তমানে ক্লাসিক্যাল ও রবীন্দ্রসংগীতে তালিম নিচ্ছেন পন্ডিত শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায় ও সুরঞ্জন রায় এর কাছে। এইদিন সিডি উদ্বোধনের পর শিল্পী মৌমিতা পালিত সিডির কিছু গান গেয়ে শোনান।  অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন মধুমিতা বসু।

Sunday, April 10, 2022

A Doctor's Enterprise to Acknowledge the achievers of Bengal turns year 17



Like every year 17th Pragati Bangla Utsav  was celebrated on 3rd March at Dr Triguna Sen Auditorium in Jadavpur University with great vigour. Prominent figures in different fields of society had been awarded with 'Sera Bangali', Bongo Gaurav award, and Mahatma Gandhi Peace award. "Dui Bangla Moitri utsav" was also encouraged by Pragati Bangla where 15 successful figures from Bangladesh were awarded. 





The founder of Pragati Bangla  Dr Arijit kr Neogy said being a doctor "when I first started Progoti Bangla it was only about doctors and those who belong to the medical field. But I always wanted the contribution of Bengalis in different fields throughout the world to come to light. And that's how Pragati Bangla Utsav started and stepped into seventeen years with success.This year we are acknowledging about 150 prominent figures from varied professions".







The event was studded with eminent and successful personalities like Barrister Promit Roy, owner of K.C. Das Dhiman Das, doctor Southik Panda, Para Asian Game Champion Prabir Sarkar, vocalist Shubhra Guho,TV personality Lajbonti Roy, Pandit Mallar Ghosh, Lt. Dr Biva Samaddar, actor Shruti Das, Vivek Trivedi to name a few of the glitterati.




The event was set ablaze by the fashion parades representing the ethnic Bengali tradition and culture. The fashion parade was augmented with notable personalities like Para Asian Game Champion Prabir Sarkar, owner of Priya cinema hall Arijit Dutta and actor Rizwan Rabbani. The event had the essence of a get together of the familiar faces from the bengali community.




Sponsored AD Space

Sponsored AD Space
See Your AD Here