Loading...

Friday, 4 September 2020

Top foods that can improve your skin health

 


Anna Smith

The most important organ of our body is skin and it is known to be the longest organ as well. Taking proper care of it is the most important thing and this is where most people become careless and it can lead to several skin issues that most people have to face. These issues include wrinkles, loose skin, acne, and blemishes. 


Suffering from wrinkles can be a sign of an early aging process and to slow it down you have to follow certain diets and healthy habits. Most people usually don’t understand how they can improve their skin issues. Some of the most beneficial things that you can do to improve your skin health are by doing proper workout and consuming healthy foods that are rich in nutrients like collagen, protein, and keratin. Such nutrients are beneficial for your skin health. 


You can use hydrolyzed collagen for this purpose as well. It is the pure source of collagen. If you are suffering from early age wrinkles then the first thing that you should do is to increase the amount of collagen that you are consuming. Other than that you should also focus on foods that are rich in it. The following foods are filled with healthy nutrients that can help to improve your skin health and elasticity.


CARROTS:

Carrots are rich in different vitamins and minerals that can boost your skin elasticity. It contains vitamin A and beta-carotene, which is also known as vitamin B. These vitamins help to improve your skin elasticity and by flushing out harmful toxins it can prevent acne and scars. Although some people don’t like the taste of raw carrot, in that case, you can mix up some other food with a carrot and drink it. It will enhance the taste of it and you will be getting all the health benefits of carrot. 


TOMATOES:

Another food that is filled with vitamins is tomato. It is a great source of vitamin C and can also reduce the inflammation of your body. Consuming tomatoes on a daily basis can boost your digestive and skin health to some extent. Mixing up tomatoes with a bunch of other healthy veggies can further boost your health. Consuming salads every day can help to keep your skin tight and healthy. 


BERRIES:

Berries are a great source of antioxidants that can slow down your aging process. It contains a compound that can improve your skin health and also reduce aging. The compound called resveratrol can be found in berries and grapes. So, try to increase your intake of berries and grapes. They can also reduce the inflammation of your body. Strawberry, raspberry, and blueberries are the types of berries that you can add to your diet. 


LEAN MEAT:

Lean meat is rich in protein and collagen and by consuming such foods in your diet, you will be able to improve your skin health by a lot. There are other things that you should consider as well. If you have leftover bones then you can cook bone broth or to save yourself from all that work, just get a pack of powdered chicken bone broth and drink it daily. This will increase the amount of protein and collagen in your body that will lead to better and healthy skin.   


SALMON:

Another healthy food for your skin is salmon fish. It is rich in healthy nutrients and on top of that it also contains omega-3 fatty acids. These healthy fats are great for your skin and especially for your heart health. Our goal should be to consume foods that can help improve our overall health and by adding seafood to our diet, we will be able to improve our skin health and prevent other health issues as well. 


FINAL WORDS:

These are some of the ways that can help you to improve your overall skin health and prevent different skin issues that can cause a lot of problems for you. So, try to improve your health by following a set of healthy habits. Consuming healthy foods and doing daily physical activities will have a huge impact on your overall health. Once you start consuming all these foods then you will notice significant changes in your health. 

Wednesday, 26 August 2020

Could you have managed a sports team better? Here is your chance.





Brawn and brain together win a game. Jurgen Klopp, Jose Mourinho, Pep Guardiola, Roberto Mancini, Joachim Low, Luis Enrique may not take a single shot in a match; but doubt not. They are the brains behind top-performing football clubs. Superstar footballers, after all, need their superstar managers. 


Coaches and managers devise strategies and lay plans. Bring out the best from players. Keep the team machinery well-oiled and smooth from behind—no less feat than any winning goal. 


Fantasy sports give you precisely the same role. 


What is fantasy sports?


It is an exciting merge of reality and imagination in the world of sport-based video gaming. In fantasy sports games, you do not control any specific player with your gaming controller, unlike FIFA soccer series games. Instead, you own the control of a virtual sporting team. You recruit virtual avatars based on real-life players. Virtual performance of these players depends on actual players’ match performances. You seal the fate of your virtual team with your knowledge of the sport, imagination and ideation. Of course, there is a tiny bit of random luck. But where isn’t it? 





Who can play fantasy sports? 

Anyone. Young, aged, seniors, men, women, non-binary - do not matter. 


What makes fantasy sports so much alluring? 


Fantasy sports gaming is already a multi-billion dollar industry today, growing at a steady rate worldwide. Let us see what makes fantasy sports so much appealing. 

  • Reality quotient - the challenge of facing the hard facts of the actual sporting world; be it football, baseball, cricket or any other sports. 

  • Defying reality - You can challenge common perception with your calculated risk and pure merit of strategy. An example can be recruiting and getting the most out of a bottom-ranking player.  

  • More fun from real sports - You go beyond from being just a passive spectator of games to an active and engaged stakeholder.   

  • Cash prizes - Every fantasy sports gaming sites offer practice matches. However, nothing beats the challenge and excitement of winning a cash prize in fantasy sports gaming tournaments. 

 


Win cash! Is it legal? 


Yes, perfectly legal. Just like online casino games, fantasy sports are also legal-approved to play. The reason - outcomes in these games do not solely depend on luck. You need skills also in terms of knowledge of sports, match strategy and solid ideation. 



However, to have a good grasp over these gaming skills, you need patience and practice. Keep yourself aware of the best gaming sites; about their pros and cons. LuckyRaja can be your secure and reliable source of well-researched expert-reviewed content on fantasy sports games, casino sites in India. . We publish only the best reviews and recommend only the best gaming sites.   


Monday, 10 August 2020

Everything You Want to Know About bone pain






Anna Smith

                                 
Bones are the most important tissue in the body. They keep the body structure. Without the bones, our bodies can’t keep their shape. We can’ do anything without bones. But sometimes we feel pain in our bones. What causes bone pain and why we feel that. We will discuss that in detail. 

 

What is Bone Pain?
Any type of discomforts such as ache or tenderness can cause pain in the bone. Bone pain is different from joint or muscle pain. It may be due to any bone disease, weak bones or broken bones.
Bone Pain:
There are various reasons that can cause bone pain. Here are some of them.

Bone Injury:
Injury is one of the most common reasons for bone pain. You can feel pain in your bone when it is damaged or broken. Bones break when they bear a high impact of pressure. High pressure on the bones can fracture or break bones. This damage can cause swear pain. Sometimes, even after healing, when you bear shock or pick heavyweights, you may feel pain again. Vitamin C can help a lot to heal your bones and boost your immunity. Try to follow a lemonade diet in order to improve your bone health. 

Infection:
Bone infection is a common problem of bones. Sometimes infection originates in the bones and sometimes it spreads to the bones from the other parts of the body. Infection in bones is a serious condition and it can do serious harm to the bones.
Osteomyelitis can kill cells in the bones and cause pain.

Leukemia:
There are various types of cancers. Bone cancer is one of them. There are also various types of bone cancers. Leukemia is one of them and particularly it is a cancer of bone marrow.
Bone marrow is important for the bones as it creates bone cells. A lesser amount of the bone marrow in the bones means a lesser amount of bone cells. Cells will bear more weight and work quantity. Cells will become weaker with the passage of time and you will feel pain in the bones. This pain is usually experienced in legs.

What are the Symptoms:
Symptoms may differ depending on the cause of the pain in the bone.
Here are some of them.
Injury can cause swelling in the affected area.
Mineral deficiency can cause pain in the muscles, bones, and tissues. Cramps is an example.
If you are affected with serious bone diseases such as osteoporosis, back pain, and sudden weight loss are very common symptoms.
There are various symptoms if you suffer metastatic cancer. Headaches, dizziness, and belly swelling are some of them.
If you suffer bone cancer bone breaks and skin lumps are very common.
If your bones are deficient in the blood, joint pain is very common.
Other bone problems may show different symptoms.
How to Relief Bone Pain:
As discussed, bone pains are common. They can become more swollen if not treated properly. Proper treatment includes medications. But food plays an important role in the health of the bones.
Treatmentment depends on the type of pain and symptoms of the pain.

Treatment options may include:
Your doctor may recommend pain relievers.
Antibiotics are also very common to prevent and get relief from bone disorders.
Nutritional Supplements are also recommended.
If you are affected by bone cancer, you will be treated accordingly.
Sometimes surgery is also required to treat bone disorders.

How Bone Pain Can Be Prevented?
Medications and proper treatment to treat bone disorders are required. But don’t wait to get affected by the bone disorders. By improving lifestyle and consuming healthy foods, you can prevent bone disorders.

Here are some things that you should do to prevent bone disorders.

Opt for healthy and nutritioust food

Eat collagen-rich foods such as collagen peptides.,

Stop smoking anddand or don’t drink too much.

Improve your lifestyle.

Exercise daily and avoid eating unhealthy food.


Conclusion:
Bones are the most important tissue of the bones. There are 206 bones in the body. Main function of the bones are to give body shape, maintain the structure of the body, keep the organs protected.
Bones can get damaged and you can feel pain in the bones due to various reasons. If bones are not getting a good amount of vitamins, minerals, and other important nutrients, they will become weak and more fragile. This will leave bone more prone to bone diseases such as osteoporosis. You
can prevent bone disorders by taking care of your bones and improving your lifestyle.

Wednesday, 22 July 2020

Top 6 Handicraft Instagram Store, Stealing Shopping Lover's Attention



Kriti Agarwal


Amidst this social media era, offline shopping is getting behind day by day. With the increase in online stores and applications, the trust of shoppers in online e-commerce is growing day by day. Along with these websites and complex applications, Instagram stores are becoming the newest trend. What once was just a social media app, Instagram has grown into a business platform for small boutiques and sellers. 

After the popular running of online shopping websites, these Instagram stores are stealing all the attention of shoppers throughout the world. The reduced cost of marketing and website maintenance has resulted in a reduced price of goods sold through these pages.


The fact that most of the sellers are small-town entrepreneurs have also resulted in the empowerment of this community.


One of the commodities that Indian Instagram stores are particularly famous for is handicrafts. Most of Indian handicraft boutiques on Instagram sell jewellery, decor items, traditional pieces, etc. The market for these handicraft pieces has been growing tremendously in recent years. I have accumulated six of the best Instagram handicraft boutique and each of these stores has a unique factor which makes them stand out. 

  1. Roudriz Jewellery - This is one of the most promising Instagram boutiques in the Indian market. The handmade jewellery pieces sold by this store is one of its kind and give the word quirky a whole new meaning. This store is based in Kolkata and hence the majority of pieces are inspired by Bengal culture. https://www.instagram.com/roudriz_jewellery/












  1. Baksa by Ruchika- This is one of the best Indian decor and lifestyle boutique on Instagram. Along with various handmade items, it also sells personalized commodities like bags, passport covers, nameplates, etc. This store is based in Bangalore and Jaipur. Definitely worth a try!


  1. Crafthub- This one has been in business for a long time. One of the most trusted handmade gift store on Instagram, this page sells everything ranging from bracelets, personalized gifts to greeting cards. This business is based in Rajasthan. One of the characteristic features of this store is that it provides worldwide shipping.


  1. Hand Made Jewellery- A fairly new store, this page has attracted a lot of customers and followers in a short period of time. This page specializes in selling handmade jewellery pieces like necklaces, earrings, rings, etc. Since this store is based in Gujarat, most of the jewellery designs are inspired by cultures of different states in India.


  1. The Urban Flairs- This site major in gifting options. Everything from handmade envelopes and cards to readymade and personalized boxes, cake toppers, wedding packages, etc. is available on this page. Maintaining a colourful aesthetic throughout the page, the store’s Instagram page is definitely appealing for any customer. This store is based in Jaipur. 

  2. Bhartiya Rangmanch- This is one of the most trusted handicraft stores among Indian shoppers. The store’s Instagram page is full of excellent handmade pieces and is a sight to behold. This store sells outstanding handmade pieces of bags and clothing items like scarves, sarees, and even accessories. This store provides worldwide shipping at affordable prices.


These were a few of my personal favourite pics of Instagram stores. I tried to incorporate stores from every genre of commodities like jewellery, textiles and even gift packages. There are numerous other stores and the number is just increasing day by day.



Tuesday, 21 July 2020

Why And When to use pantyliner : Everteen pantyliner review



Pantyliner has become an inevitable comfort for every woman’s life. it is very normal and common to have vaginal discharge. And during this time a panty liner can work as greatest saviour making you feel clean and maintaining hygiene.

What is a panty liner? Pantyliners are different from sanitary pads. Sanitary pads are thick, long layered absorbent materials. It captures the menstrual flow externally. Pantyliners are thin and lack padding. 

In this post, I am going to review about panty liner from Everteen which they send me a few months ago. As you know how much I become fond of their products. This is just because their quality products never disappoint me. As usual this time also Everteen didn’t fail my expectation. Everteen panty liner comes in a rectangular box with floral print. I totally love the soothing pink and white colour of the box. There is all total of 17 pantyliners which one can easily use for three to four months.


When to use? During ovulations, it is common to have white discharge. Using panty liners can help you to keep you dry during this time.

Pantyliners can be used during lighter period days. It can be worn with tampons or menstruation cup to avoid any kind of leakage.

You can make good uses of pantyliner to manage stress incontinence.



What I Like

Everteen pantyliner has hundred percent cotton surface with breathable layers. It has good absorbent power that keeps you fresh and clean all day long.

It has the capacity to keep the moisture away. It demands to use antibacterial negative ion chips which prevent the growth of bacteria. Thus helps in eliminating odour and prevents rashes.

Not scented

What I don't Like

The adhesive doesn't extend to the sides, so liner rolls up in the middle.










Saturday, 20 June 2020

অনুভবে (গল্প ও ঘটনা)







অনুভবে
      
   জয়িতা সরকার



কত সবুজ, কত নীল চারপাশটা কত সুন্দর তাই না মা? কবে যে বাইরে প্রাণভরে একটু খেলা করব, না না এই আতংকিত পরিবেশে আর বাইরে যাওয়ার কথা বলো না। না মা আমি তোমার সঙ্গে সঙ্গেই থাকব। একা কোথাও যাব না। ঠিক আছে ঠিক আছে, অনেক পাকা পাকা কথা হয়েছে, এখন চুপটি করে থাকো তো। আমাকে আবার বাইরে যেতে হবে, খাবার জোগাড় করতে হবে। আমিও তোমার সঙ্গে যাব মা, সেতো যাবেই, তোমাকে রেখে তো আমার কোথাও যাওয়ার জো নেই। 

আর কতক্ষণ বলতো মা, এভাবে ঘুরতে আমার একদম ভাল লাগছে না, চলো ফিরে চলো। ছোট্ট সোনার আবদারে ফিরে এলো আস্তানায়। পশ্চিম আকাশ লাল করে সন্ধ্যে নামল দূরের গ্রামে। দেখো মা, গ্রামটা কী ভাল লাগছে এই সন্ধ্যেতে। একদিন ওখানে নিয়ে যাবে আমায়? হ্যা গেলেই হয়। আচ্ছা এবার একটু শান্ত হয়ে থাকো দেখি। কিন্তু সেতো শান্ত হওয়ার অর্থই বুঝতে শেখেনি। ও মা একটা গল্প বলো না, ফের বায়না, বলো,  একটা গল্প বলো। আচ্ছা বাছা শোন মন দিয়ে...

সে কতশত যুগ আগের কথা, আমি কিন্তু অত সময় দিন ক্ষণ জানিনে। তবুও বলি- তখন এক অন্য ভারত। রাজাদের দেশ, জহর মণি মানিক্য তে মোড়া আমাদের ইতিহাস। সেই ভারতে এক বিখ্যাত রাজ্য হস্তিনাপুর। গৌরব তার শিখরে। কিন্তু লড়াই বাঁধল কে পরবর্তী রাজা হবে। শুরু হলো যুদ্ধ। সে এক মহারণ। কত হাতি, কত ঘোড়া, কত বড় বড় যোদ্ধা। লড়াই চলছে দুই পক্ষের। একদিকে পান্ডব অন্যদিকে কৌরব। লড়াই লড়াই...

মা তুমি কেন ঘুমিয়ে পড়লে বলো গল্পটা। তারপর কী হলো? মায়েদের এই এক দোষ, কেনো যে এতো ঘুম আসে চোখে? বাচ্চাগুলো দিব্যি জেগে আছে, মা গেল ঘুমিয়ে। ওঠো মা, গল্প বলো। আহা সেদিন যদি চোখে ঘুম না আসত, তাহলে আমার বাছার প্রাণ টা যেত না। আমিই দোষী...এক আকাশভেদী চিৎকারে কেঁপে উঠেছিল কুরুক্ষেত্রের মহারণ। হয়ত সেদিন নিজের ঘুমকেই চিরশত্রু মনে করেছিল অর্জুনপত্নী। 

বাবা মায়ের গল্পখানা চুপটি করে বেশ শুনছিল সে। মায়ের জঠরে থেকেই বেশ রণকৌশল আয়ত্ত্ব করছিল, কিন্তু মা ঘুমিয়ে পড়ল মাঝপথে। অনেকবার ডেকেও ঘুম ভাঙ্গাতে পারেনি মায়ের। আর কী সেই অর্ধ শেখা রণকৌশল নিয়েই নেমেছিল রণাঙ্গণে। নিজের কৌশলে ঢুকে তো পড়ল সেই চক্রব্যূহে। উফফ তারপর সেই কঠিন লড়াই। চারিদিক থেকে ঘিরে ধরল তাকে। যুদ্ধ এর সেদিন আর কোনো নিয়ম রইল না। নীতি সেদিন হেরেছিল অনীতির কাছে। অধর্ম সেদিন ধর্মের খোলস পড়েছিল। একের পর এক বাণে বিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ল অভিমুন্য। তার আর্তনাদেই তৈরি হল ধর্মের জয়ধ্বনি। 

বাহ! মা কী সুন্দর গল্প, আমিও এরকম যোদ্ধা হবো। ধুর বোকা, এখন ওসব নেই। এটা তো কলিযুগ। এখন এভাবে সন্মুখ সমর নেই। এখন ব্যালট বক্স যুদ্ধ। এখন তো রাজতন্ত্র নেই, গণতন্ত্র। আমরা সবাই সমান, সবাই ভোট দেয়, এখন ঘুমিয়ে পড়ো তো, তোমার এসবের ঢের দেরি আছে। এসব কঠিন বিষয়ে ভাবার অনেক সময় পড়ে আছে। মায়ের আদরে চুপটি করে ঘুমিয়ে রয়েছে সে। মা ও কী ভীষণ যত্নে আগলে রেখেছে তাকে। 

উফফ মা বড্ড খিদে পেয়েছে, কিছু খাবার তো দেবে নাকি? আজ শরীরটা বড্ড ক্লান্ত , একদম কাজ করতে পারছি না। হাঁপিয়ে যাচ্ছি সোনা। কিন্তু আমার তো খিদে পেয়েছে। সন্তানের খিদে মেটাতে অগত্যা অবসন্ন শরীরেই বাইরে বেরোতে হল। ঘরে খাবার বাড়ন্ত, তাই ঘর ছেড়ে বাইরে, হেঁটে চলছে এদিক ওদিক, না কেউ কিছুই দিচ্ছে না। ওদিকে তীব্র খিদেতে ছটফট করছে সন্তান। খাবারের সন্ধানে শেষে ওই গ্রামে, মা যেটা আমরা দূর থেকে দেখেছিলাম সেদিন সেখানে এলাম তো। হ্যা লোকজন ভালোই আছে, কিছু না কিছু নিশ্চয়ই পাবো এবার। 

কিছু খেতে দেবে গো? বড্ড খিদে পেয়েছে, শুনতেই সামনে হাজির মন্ডা মিঠাই। দেখেই জিভে জল, কতদিন এসব খাইনি আমরা। টপাটপ মুখে পুড়তে লাগল, মুহুর্তেই গুড়ুম গুড়ুম শব্দ, আর চারপাশে হাততালি। ও মা, কী হলো? আমি কিছু দেখতে পাচ্ছি না। তোমার মুখে কি রক্ত ঝরছে। মা ওগুলো মিষ্টি নয়? ওরা আমাদের ঠকালো মা। জঠরের সন্তান নিয়ে প্রাণপণে এদিক ওদিক ছুটছে সে। একদিকে নিজের বড় দেহ, তার ওপর সন্তানসম্ভবা, উফফ কি যন্ত্রণা। মুক্তি কোথায়? মা এটা কী সেই চক্রব্যূহ? কোনো উত্তর দিতে পারছে না মা এই মুহূর্তে। রক্ত ঝড়ছে মুখ দিয়ে, চোখ দিয়ে গড়িয়ে পড়ছে জল। 

নিজেকে একটু স্বস্তি দিতে নেমে গেল জলে। কিন্তু তাতে জ্বালা কমেনি একবিন্দুও। তোমার খুব কষ্ট হচ্ছে তাই মা? যদি আমি তোমার ভেতরে না থেকে পাশে থাকতাম এই যুদ্ধ আজ জিতেই ফিরতাম। ওরা তোমাকে একা পেয়ে অন্যায় ভাবে মেরেছে আমাদের। মা ওরা উল্লাস করছে। মা, ও মা, আমরাও জানি
 না এই ব্যূহ থেকে বেরোনোর পথ। মা কথা বলো, মা নীরব, উত্তর নেই তার কাছে। এও এক ধর্ম অধর্ম এর খেলা। নির্মমতার কলিরূপ। 

নিজের সঙ্গে লড়াই করছিল নিজেই। কিন্তু সভ্য সমাজের কাছে হার মানল জংলী। জলেই রইল মা আর সন্তানের ভালবাসা।

Wednesday, 10 June 2020

ওড়না (গল্প ও ঘটনা)

ওড়না
শ্রীজা ঘোষ সুর



তখনও ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদছে ওলি। শ্বশুরবাড়ির লোকের  কথাগুলো যেন শেল হয়ে বিঁধছে মনে। অনীককে বার বার একই কথা বলতে গেলে এবার সেও বিরক্ত হবে। কিন্তু এতে তার কি দোষ? এরকম অসভ্যের মতো কথা শুনলে কেই বা ঠিক থাকতে  পারে?
মাত্র তিন মাস হয়েছে বিয়ে হয়েছে অলির। বাবা মা, দাদা যথাসাধ্য দিয়েছে। গয়না, বাসন, বাহারি নমস্কারি, ঠাসা তত্ত্ব এছাড়াও আরো যা যা দেওয়া যায়। সাধ্য মতো সব দেওয়া হয়েছে অলির বাড়ি থেকে। না অনীকের বাবা মা কিচ্ছুটি চাননি। মানে এখনের যেটা হাল ফ্যাশান। আপনি আপনার মেয়েকে দেবেন। আমাদের ছেলের আর কি দরকার? সবই আছে তো। কিন্তু যত দিন যায় এই ফ্যাশানের খোলসটা রয়ে যায়। ভেতরটা বেরিয়ে পড়ে। অলির ক্ষেত্রও হলো ঠিক তাই। অষ্টমঙ্গলার পর থেকেই শুরু হলো চিরাচরিত বউ ও বউয়ের বাপের বাড়ির খুঁত ধরার কাজ। এ যেনো এক অঘোষিত নিয়ম। তুমি জখন এসেই পড়েছ তখন বলি কাঠে গর্দান তো তোমাকে দিতেই হবে। তাই কিছুদিন যেতে না যেতেই ওলির শাশুড়ি ও শ্বশুর বাড়ির আত্মীয়স্বজন সেই চিরাচরিত ধর্ম পালন শুরু করলো। অলির শাশুড়ির পছন্দ হয়নি বাপের বাড়ি থেকে আনা কোনো কিছুই। উঠতে বসতে বলেন, তোমার বাপেরবাড়ি থেকে অনিকে যে আংটিটা দেওয়া হয়েছে সেটা যেন বড্ড হালকা। তা দিলেন যখন মন খুলেই দিতে পারতেন। 
কখনো বা বলে বসেন “তা বৌমা তোমার দাদা তো বড় চাকরি করে তা আলমারিটা অমন ছোট কোনো? লজ্জায় তো সকলের সামনে মাথা হেট করে দিলে।“ আজ শাশুড়ির ছোটভাজ তনু এসেছেন। বিয়েতে আসতে পারেননি তাই আজ এসেছেন নতুন বউয়ের মুখ দেখতে। নমস্কারিতে আনা দামি জামদানিটা দিয়েই ওলির সামনেই শাশুড়ি মুখ চোখ ঘুরিয়ে শুরু করলেন  “ নাও তনু ধরো। কি আর বলবো। নমস্কারি দিয়েছে দেখো। মানুষকে কি দিতে হয়, আর না হয় জানেনা বোধহয়।“ 
ওলি আর চোখে জল ধরে রাখতে পারেনি। ছুটে বেরিয়ে গেছে পেছনের বাগানে। তখন সন্ধে সাতটা। বেশ অন্ধকার। হঠাৎ যেন কে ওড়না ধরে টানলো। অনি কি তাহলে অফিস থেকে ফিরে এলো। পেছন ফিরে অনিকে জড়িয়ে অঝোরে কাঁদতে যাবে ওলি, কিন্তু কই কোথাও তো কেউ নেই। এবার জোরে ওড়না সমেত চাপ পড়লো গলায়। উফফ আর তো ছাড়ছে না। কোনো রকমে পেছনে ফিরলো। একি ! এ কাকে দেখছে !! আলো ছায়ায় স্মৃতিপর্ণার অবয়ব মনে হচ্ছে না? হ্যাঁ। একদম ঠিক। চিনতে একটুও ভুল হচ্ছে না। আজকের দিনেই তো।
 স্মৃতিপর্ণা মানে ওলির বৌদি। আজকের দিনেই দু বছর আগে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছিল। তখন মাত্র এক বছর বিয়ে সম্পূর্ণ হয়েছিল তার দাদা বৌদির। তখন তার বৌদি সন্তানসম্ভবাও ছিল।
কিরে ওলি? আমি এসেছিরে। সংসার কেমন করছিস জানতে খুব ইচ্ছে করছে। হিসহিস করে বলে উঠলো স্মৃতিপর্ণা। কথা বলতে পারছেনা ওলি। ওড়নার ফাঁসটা যেন ক্রমশ শক্ত হয়ে আসছে। 
মনে আছে ওলি আমি কেমন চোখে সাজানো স্বপ্ন নিয়ে দাদার হাত ধরে তোদের বাড়িতে গিয়েছিলাম। সবই ঠিক ছিল।  কিন্তু কি জানিস তো মায়ের ওই কথাগুলো না রোজ আমাকে বড়ই কষ্ট দিতো। মা, বাবা, শিক্ষা নিয়ে সবসময় কথা বললে বড্ড আঘাত পেতাম। তুইও যে বড্ড উস্কাতিস মাকে। তোর দাদা মায়ের মুখের ওপর কিছু বলবেনা বা তোকে চটাবেনা তা তো জানতাম। তাই বলা ছেড়ে দিয়েছিলাম। পুজোর তত্ত্ব এসেছিল আমার বাপের বাড়ি থেকে। তুই অমনি একের পর এক খুঁত বার করতে শুরু করলি। বললি সালোয়ারের সঙ্গে যে ওড়নাটা দেওয়া হয়েছে সেটা নাকি ছেঁড়া। আমি দেখেছিলাম ওড়নাটা তুই ছিঁড়েছিলিস। উস্কে দিয়ে মজা দেখতে চেয়েছিলিস। মা আমাকে এক ঘর লোকের সামনে কি অপমানটাই না করলো।  আর সহ্য করতে পারিনি রে। সেদিন রাতেই গলায় ফাঁস লাগালাম। বিশ্বাস কর খুব কষ্ট হয়েছিল। আরো কষ্ট হয়েছিল নিজের সন্তানকে মেরে ফেলছিলাম বলে।
হঠাৎই যেন আকাশ চূর্ণ করে স্মৃতিপর্ণার কান্নার শব্দ পাচ্ছে ওলি। তার সঙ্গে সঙ্গে ওড়নার প্যাঁচটাও যেন আরো শক্ত হতে থাকছে গলায়। 



Sunday, 7 June 2020

Reishi Mushroom could be an amazing solution for the improvement of overall health : Review of Ganoderma from Nature Sure



'Physical strength is the most important thing in life. This is true whether we want it to be or not.'
'In a healthy body there is always a healthy soul.'

These are only few quotes I shared with you. But if you go through these lines and think, then you can realise how true these lines are. So it is duty to keep our body healthy . we don't stay healthy we can never keep our immunity strong. For that we also need to lead a healthy lifestyle. 

               Along with healthy diet I started taking Ganoderma capsule from Nature Sure. It is Popularly known as Rishi Mushroom and also called as Mushroom of Immortality. They asked me to throw some light on the product. But before this review let us know what is Reishi mushroom. It is a fungus that contains chemical. It is generally used to cure Alzheimer's disease, prostrate cancer, diabetis, viral infections, insomnia, fatigueness, improves the function of immunity system and many more. They are often known as mushroom of immortality. Countries like Japan,India, Korea, China are using it medicinal purpose since years.



Uses Of Ganoderma Capsule

According to Nature Sure it is medically proven that  this capsule is able to improve stamina and energy level

Improves immune system. And we all know strong immune systemcan easily protect against harmful conditions and substance.

Fight against stress and fatigueness

helps to cure viral infectionslike flue, asthama , food poisoning.

It is said that taking Ganoderma capsule regularly can manage growth of tumor, supports conventional therapy for cancer and gives anti- HIV protection.  

It may have ability to subdue chest pain and shortness of breath.

Helps to fight against insomnia, cholesterol, nepphritis, hepatitis, arthritis, kidney, digestive diseases and many more.

Contains
This 100%  natural, effective and safe (as Nature Sure demands) capsule (each 500gm) contains Ganoderma lucidum.

My Experience

Taking it for more than three weeks. I am doing prettier good with it but that doesn't mean I have started noticing immense difference. Well everything needs to give some time to see the consequence. What good thing I found in it is definitely the upliftment of the mood and energy. Also having good sleep.

I experienced a mild amla like smell after opening the bottle. 

Appearance

Comes in a simple plastic bottle with golden cap with all instructions written on the label. Each bottle contains 60 capsules which are bright green in colour. When I open the cap I found all the capsules are well protected with cotton sheet. 

Precautions

Lactating and pregnant woman, infant and children or people on medication  must refrain from this capsule. Even if you are healthy then also consult doctor as I have, before taking this Ganoderma capsule.




















Saturday, 30 May 2020

সঠিক ডিগ্রী নেই। সোশ্যাল মিডিয়াতে রোষের মুখে সেলেব্রিটি ডায়েটেশিয়ান




তন্নী অপরূপা হতে কে না চায়। কিন্ত যদি 
ওজন বৃদ্ধি হতেই থাকে তাহলে তো সে গুড়ে বালি। তাই নিজের সঠিক চেহারা ধরে রাখতে আমরা দ্বারস্থ হচ্ছি ডাইটিশিয়ানদের কাছে। তবে সেখানেও কিন্ত পরীক্ষা দিতে হচ্ছে ধৈর্যের। কারণ এত তাড়াতাড়ি ওজন কমানো কখনোই সম্ভব না। তার জন্যে দরকার সময়। কিন্তু এতদিন সময় দিতেই অনেকে নারাজ। এখন বেশিরভাগ সময় মানুষ বুঁদ হয়ে থাকে সোশ্যাল মিডিয়াতে। আর এই সোশ্যাল মিডিয়াতেই মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই রোগা করে দেবার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিজ্ঞাপন দেখতে। সেই বিজ্ঞাপনের ভিত্তিতে অপরদিকের মানুষটিকে বিশ্বাস করেই সহজেই ধরা দিয়ে ফেলি আমরা। তবে বিজ্ঞাপন দাতার সঠিক জ্ঞান বা ডিগ্রী রয়েছে কিনা তা কিন্তু অজানাই থাকে। বৈজ্ঞানিক ভিত্তিতে মাত্র কয়েকদিনের মাথায় ওজন কমানো যায় কিনা তাও কিন্তু আমরা ভেবে দেখিনা তন্নী হবার নেশায়।

ঠিক সেইরকমই স্বঘোষিত এক ডায়েটেশিয়ানের বিরূদ্ধে লোক ঠকানোর অভিযোগে ঝড় উঠলো ফেসবুকে। ওই ফেসবুকে একাংশের দাবি যে রুপশ্রী চক্রবর্তী নামক ওই স্বঘোষিত ডায়েটেশিয়ানের আদৌ কোনো সঠিক ডিগ্রি নেই। অথচ কয়েক বছর ধরেই সাধারণ মানুষের পাশাপাশি টলিউডের বহু সেলিব্রেটিও ওনার ক্লায়েন্ট হিসেবে রয়েছেন। 

সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেকেই দাবি তুলেছেন যে রুপাশ্রীর আদৌ কোনো নিউট্রিশন বা ডায়েটিং এর ওপর ডিগ্রি বা ডিপ্লোমা নেই। না আছে ওনার সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড। তাহলে উনি কিসের ভিত্তিতে এভাবে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ডায়েটের পরামর্শ দিচ্ছেন? এক নিউট্রিশনের ছাত্রী জ্যোতিরময়ী ব্যানার্জী ফেসবুকে সাফ লিখে জানিয়ে দেন রুপশ্রী হাতুড়ে ডায়েটেশিয়ান যিনি কিনা মোটা টাকা নিয়ে মানুষকে বোকা বানাচ্ছেন। উনি মাস ক্যাম্পইন চালিয়ে রুপশ্রী কে ওনার ডিগ্রির বিষয় প্রশ্ন তুললে তিনি মেনেই নেন যে কোনো ডিগ্রি তাঁর নেই। এরপরই অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া থেকে রুপশ্রীর বিরুদ্ধে মুখ খোলেন অনেকে। অনিন্দিতা নন্দন নামে ওনার এক ক্লায়েন্ট জানান ওনার ওই ডায়েট চার্ট ফলো করতে গিয়ে শরীর খারাপ হয়ে গিয়েছে। প্রথমে টাকা ফেরত দেব বললেও পরে আর তা করছেন না। প্রসঙ্গত ডায়েট ফর এভার নামে একটি ফেসবুক পেজের মাধ্যমে ক্লায়েন্টদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতেন তিনি। এই ঘটনার পর সঙ্গে সঙ্গে তা ডিলিট করে দেওয়া হয়।




তবে ছোট পর্দার অভিনেত্রী অনিন্দিতা রায়চৌধুরী যথেষ্ট খুশি রুপশ্রীর ডায়েট চার্ট পেয়ে। তিনি জানান যে আমি যখন ওর কাছে যাই এক বছর আগে তখন আমার শারীরিক অনেক সমস্যা ছিল। ওর ডায়েট চার্ট মেনে চলে আমি এখন অনেক ভালো আছি। আমার সত্যি কিছু যায় আসেনা যে ওর কাছে কি ধরণের ডিগ্রী আছে। কারণ আমি ভালো ফল পেয়েছি। আমি বাকীদেরটা বলতে পারবনা তবে আমাকে ও কোনোদিন কোনো সাপলিমেন্ট বা ওষুধ নিতে জোর করেনি। আমি যেমন ভাবে খেতে চেয়েছি ও ঠিক সেভাবেই ডায়েট চার্ট দিয়েছে।

এরপরই বং জার্নালের তরফ থেকে রুপশ্রীকে ফোন করলে জানা যায় তিনি অসুস্থ। তাঁর হয়ে কথা বলেন তাঁর ফিয়ান্সে দেবজয় মল্লিক। তিনি মেনে নেন যে নিজের ক্ষেত্রে ডায়েটেশিয়ান শব্দটা রুপশ্রী ব্যাবহার করে ভুল করেছে ঠিকই। কিন্তু তিনি সেই ভুলটা মেনে নেবার আগেই তাঁকে ব্যক্তিগতভাবে হেনস্থা করা হয়েছে। তবে উনি অনলাইনে অবশ্যই এই বিষয়ে নিয়ে ডিপ্লোমা করেছেন। তাহলে উনি তা নিজের প্রোফাইলে দিলেন না কেন। দেবজয় মল্লিকের যুক্তি যেহেতু ওটা একটা ক্র্যাশ কোর্স তাই ওর সেটি দেবার কথা মাথাতেই আসেনি। মেনে নিচ্ছি যে এইভাবে ওর চার্ট করে দেওয়া উচিৎ হয়নি। এখন যদি ওই সার্টিফিকেটগুলি সোশ্যাল মিডিয়াতে দিয়েও দি তাহলেও জানি ট্রোল হবো। কারণ জানি ডায়েটেশিয়ান হওয়া যায়না এতে। তবে মিডিয়া চাইলে সার্টিফিকেট দেখাবো তবে আইনি পরামর্শ নিয়ে। 
 
বং জার্নাল এই বিষয় কথা বলে বিসিসিএল - এর ডায়েটেশিয়ান সঞ্চারি মুখার্জীর সঙ্গে। উনি জানান নিউট্রিশন নিয়ে এক বছরের ডিপ্লোমা তারাই করতে পারে যাদের সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড আছে। স্নাকোত্তর এই ডিপ্লোমাটি যদি কেউ করে থাকেন তবে সে নিজেকে ডায়েটেশিয়ান বলতেই পারে। তবে রেজিস্টার ডায়েটেশিয়ান হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেতে গেলে IDA থেকে RD পরীক্ষা পাশ করবে হবে। এ ছাড়াও হাসপাতালে যাদের নিয়োগ করা হয়ে তাদের আর ডি না থাকলেও এমএসসি-র পর ডিপ্লোমা অথবা ইন্টার্ন করা থাকে। তবেই কিন্ত তারা ডায়েটেশিয়ান। তবে আর.ডি দিতে হলে আগে পাঁচ বছর হাসপাতালে প্র্যাক্টিস করে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতে হবে।
তবে রুপশ্রীর সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড নেই এবং যে সার্টিফিকেটগুলি আছে তার আদৌ কোনো রেকগনিশন আছে কিনা তা আগে দেখতে হবে। আর যদি সব ঠিক থেকেই থাকে তবে উচিৎ সেটিকে সামনে আনা।
আমরা সবসময় স্বাস্থ্য সম্মত ডায়েট দেবার চেষ্টা করি। একজন মোটা মানুষকেও দুম করে সব খাবার কমিয়ে দি না। ওনার কিছু কিছু ডায়েট চার্ট সামনে এসেছে। তাতে কিন্তু ব্যালান্স ডায়েট কিছু আছে বলে দেখলাম না। এটা বেশিদিন কেউ মানলে অপুষ্টিতে ভুগবেন। দশ পনেরো দিনে কখনো রোগ হওয়া সম্ভব না। যদি হয়ও থাকেন তবে তার পরিনাম খুব একটা ভালো হবেনা।
      
তাহলে সঠিক জ্ঞান ছাড়া ডায়েট চার্ট অনুসরণ করলে কি ক্ষতি হতে পারে?
নিউট্রিশানিস্ট শরণ‍্যা কুণ্ডু ( Msc in Clinical dietetics) জানান ডায়েট মানেই যে রোগা হতে হবেএ তা নয়। রোগা হতে হলেও তা বিজ্ঞান সম্মতভাবে করতে হয়। কাউকে ডায়েট চার্ট দিতে হলে আগে তার শারীরিক পরিস্থিতি, তার উচ্চতা, লিঙ্গ। এই সমস্ত বিবেচনা করে তবেই দেওয়া হয়। সাধারণ মানুষকেও এই বিষয়ে একটু সচেতন হতে হবে। 



 


 


Monday, 27 April 2020

করোনাতে কিভাবে সুরক্ষিত থাকবেন গর্ভবতীরা। বিশদে জানাচ্ছেন বিশিষ্ট গাইনি


এ যেন এক অসম লড়াই। চারপাশে যুদ্ধকালীন তৎপরতা। একটু অসাবধানতা। আর তাতেই মানব শরীরে অনায়াসে থাবা বসাতে পারে করোনা। 
এই নভেল করোনা ভাইরাসের জেরেই এখন থমকে গিয়েছে আমাদের জীবন। ছন্দপতন ঘটেছে আমাদের রোজকার চেনা জীবন যাত্রাতেও। আর এমন অবস্থায় গর্ভবতী যারা তাদের উদ্বিগ্ন হওয়া খুবই স্বাভাবিক। কতখানি ঝুঁকি রয়েছে। কি ভাবেই বা নিজেকে সুস্থ রাখবেন এই সময় তা নিয়ে বং জার্নালকে বিশদে জানালেন  ‌মৃগাঙ্ক মৌলি সাহা (Obstetrics and Gynaecology)

এই করোনা ভাইরাস থেকে একজন সাধারণ মানুষের যতটুকু থাকে, একজন গর্ভবতী মহিলারও ঠিক ততটুকুই ঝুঁকি থাকে। তবে দেখা গিয়েছে মা যদি আক্রান্ত হয়েও থাকেন তবে তা থেকে সদ্যোজাতোদের শরীরে প্রবেশ করতে পারেনি এই নভেল করোনা। বা এর দ্বারা কোনো গর্ভপাতের নজির এখনো পর্যন্ত মেলেনি।
তবে কথাতে আছে precaution is better than cure, তাই হবু মায়েরা যদি আগে থেকেই নিজেদের জীবনযাত্রায় পরিবর্তন আনে তাহলে সংক্রমণ রোধ সম্ভব হবে। যেমন খাওয়া দাওয়া। প্রচুর পরিমানে শাক সবজি খেতে হবে। আন্টি অক্সিডেন্ট জাতীয় খাবার প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে যা এই ধরণের রোগ ঠেকাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। ভিটামিন সি রয়েছে এমন ফল খান। প্রয়োজনে ভিটামিন সি ট্যাবলেট খাওয়া যেতে পারে।এছাড়াও ঘন ঘন জল খান। অর্থাৎ হবু মায়েদের প্রথম কাজটি হল নিজের সুস্বাস্থ্যের রক্ষণাবেক্ষণ করা। তার প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে স্বাস্থ্যকর খাওয়া। সামাজিক দূরত্ব অনুশীলন করা। 
সামান্য সর্দি কাশি হলেও দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। তবে এতে ভয়ে পাবার কিছু নেই। করনাতে আক্রান্ত হলেও দেখা গিয়েছে যে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে দ্রুত সেরে উঠেছে।  খেয়াল রাখতে হবে সর্দি কাশিতে কোনো শ্বাস কষ্ট হচ্ছে কিনা। চিকিৎসকের পরামর্শ মানুন। তেমন বুঝলে আগেই হাসপাতালে ভর্তি হয়ে যেতে হবে।
তবে মা কোনোভাবে আক্রান্ত হলে ডেলিভারির সময় কিছু জটিলতা আসতেই পারে। তাই আগে থেকেই চিকিৎসক কে জানিয়ে রাখুন। সে ক্ষেত্রে কিছু সাবধানতা নিতে হতে পারে। এম্বুলেন্স ও হাসপাতাল কতৃপক্ষকেও জানিয়ে রাখুন। প্রয়োজনে বিশেষ প্রটেক্টিভ কিট ব্যাবহার করতে হবে। 

কি ভাবে সুরক্ষিত রাখবেন সদ্যোজাতদের

শিশুকে ধরার আগে বা তার ব্যাবহারের যে কোনো জিনিস ধরার আগে ভালো করে সাবান দিয়ে হাত ধুন। 

সদ্যোজাতর সামনে কাশি বা হাঁচি এড়িয়ে চলুন।

প্রতিবার ব্যাবহারের পর শিশুর দুধের বোতল ও ব্রেস্ট পাম্প ভালো করে পরিষ্কার করে নেবেন।

শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় বা সামনে থাকার সময় অতি অবশ্যই মাস্ক ব্যাবহার করুন।




Wednesday, 8 April 2020

How to slow down Covid - 19 : As advice by Doctor





Right now we are living in a world which is facing the severe pandemic of Novel Corona Virus. The pandemic is observed to have different stages in the infection cycle. The stage three is most alarming when the community transfer starts in geometric proportion. Our country is now at stage two. Dr Mriganka Mouli Saha (Gynaecologist and Obstetrics) shared here important advices on how to prevent  pandemic from reaching stage three.


The pandemic is growing exponentially in almost every countries. But there are few countries which have significantly slowed down the pandemic spread. Recently we have come across a video and come to know that Czech Republic is one of those countries  which has significantly controlled the infection propagation. Here are the few process they follow to slow down the vivid corona virus. Social distancing by staying at home, by following strict hygienic process and by wearing mask while going out ( this mostly concerns aged and sick people who may be suspected).
Many people are contagious before they show any type of symptoms. 
According to Vladimir Zdimal ( Head of the dept of chemistry and Aerosol physics, Czech Academy of Sciences) even a simple homemade mask can prevent 100% of the droplets.
Here we asked Dr. Mriganka Mouli Saha how far this procedure can work to slow down the pandemic. According to Dr. Saha it can definitely be slowed down by maintaining social distance as primary step to cut down the growth. He advises us to avoid any kind of social gathering and proximity with strangers during this period. Go out only if there is any emergency. Even if you go out then don't forget to maintain atleast 1 meter difference from another person. So that the droplets that are created while talking get settled down within the said distance. As a result you don't get in touch with the virus. 




Does wearing mask really beneficial? 


Yes definitely. Whenever you are leaving home you need to wear it. So that it could prevent the virus from entering through nose and mouth and then passing to the respiratory tract. But you don't need to wear it at home




What type of mask we should use?


People can use simple surgical mask. N - 95, N - 97 are only meant for doctors. But there are also some do's and don't of using mask. Avoid touching the mask once you wear it. 


Surgical masks are effective upto 8 hours. Don't forget to wash them with detergent after using.



What else we need to do?


Keep yourself clean. Use sanitizer with more than 70% of alcohol. Wash your hand with soap for more than 20sec. Otherwise it won't work.


Interview by Sreeja Ghosh Sur

Dr.Saha has also given valuable suggestion for pregnancy related issues during the lockdown condition.
We shall share his prescribed dos and dont's in our upcoming post...















Sponsored AD Space

Sponsored AD Space
See Your AD Here